করোনায় আক্রান্ত কিশোরীকে ধর্ষণ-ভিডিও আরেক করোনা রোগীর!

ছি ছি! ভারতে হচ্ছেটা কী? মহারাষ্ট্রে কোয়ারেন্টিন সেন্টারে করোনা সংক্রমিত নারীকে ধর্ষণের ঘটনা জানা গিয়েছিল গত সপ্তাহে। এবার সামনে এলো করোনায় আক্রান্ত কিশোরীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ।

ভয়ংকর করোনা পরিস্থিতিতেও দক্ষিণ দিল্লির একটি কভিড কেয়ার সেন্টারে ১৪ বছরের এক নাবালিকাকে যৌন নির্যাতন করেছে আরেক করোনা রোগী। ঘটনায় দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে পকসো আইনে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে এবং যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত ১৯ বছরের তরুণ এবং তার সহযোগীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জানা গেছে, যে কিশোরীর ওপর যৌন নির্যাতন করা হয়েছে সে এবং অভিযুক্তরা সবাই দিল্লির বাসিন্দা। কিছুদিন আগে করোনা পজিটিভ হিসেবে ধরা পড়ায় তাদের ওই কেয়ার সেন্টারে রেখে চিকিৎসা করা হচ্ছিল। যৌন নির্যাতনকারীর সঙ্গে আরো যে ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সে ওই হেনস্তার ঘটনাটি মোবাইলে ভিডিও করেছে।

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, গত ১৫ জুলাই রাতে কিশোরী যখন শৌচাগারে যায় সেই সময়ই তার ওপর হামলা করে ১৯ বছরের ওই তরুণ। নির্যাতিতা কিশোরী ও অভিযুক্তরা দিন কয়েক আগেই পরিবারের আরো কয়েকজন সদস্যের সঙ্গে ওই কভিড কেয়ার সেন্টারে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়েছিল। দিল্লিরই একটি বস্তিতে বাস করত তারা।

কিশোরীর সঙ্গে যৌন হেনস্তা হওয়ার পর প্রথমে ভয়ে চুপ করে ছিল সে। পরে ওই কেয়ার সেন্টারেই চিকিৎসাধীন নিজের এক আত্মীয়কে ঘটনার কথা জানায় সে। পরে বিষয়টি পুলিশের কাছে পৌঁছায়।

পুলিশ জানিয়েছে, দুই আসামিকেই গ্রেপ্তার করার পর ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে আদালতে হাজির করা হয়। অভিযুক্ত দুজনকেই জেল হেফাজতে রাখার আদেশ দেন বিচারক। যে কিশোরীর ওপর যৌন নির্যাতন হয় তাকে আপাতত অন্য আরেকটি কভিড কেয়ার সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

সূত্র : এনডিটিভি।

আরও খবর